আটঘরিয়ায় গৃহবধূ ধর্ষণের সময় জনতার হাতে ধরা ; লম্পট গোলজার আহত

দৈনিক নতুন বিশ্ববার্তা অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:৩৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৭, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার : পাবনার আটঘরিয়ার সন্জয়পুর ক্লাবপাড়ায় এক গৃহবধূর ঘরে ঢুকে ধর্ষণের সময় জনতার হাতে নাতে ধরা পড়ে বেদম পহারে আগুরত্বর আহত হয়েছে গোলজার হোসেন (৩৮) নামের এক ব্যক্তি। গোলজার ক্লাবপাড়ার মো: তায়জাল সরকারের ছেলে। ঘটনাটি ঘটেছে, গত রোববার দুপুর ২টার দিকে।
নির্যাতিত গৃহবর্ধর অভিযোগ, লম্পট গোলজার হোসেন প্রায়ই তাকে কূপ্রস্ততাব দিত। এ নিয়ে একাধিকবার গ্রাম্যশালিশও বসে। তার পরেও বিভিন্ন সময় গোলজার হোসেন তার স্ত্রী রুবিয়া খাতুনের সহযোগীতায় কূপ্রস্তাব অব্যাহত রাখে। এরই এক পর্যায়ে গত রোববার (০৪ অক্টোবর) দুপুর ২টার দিকে স্বামী বাড়িতে না থাকার সুবাদে লম্পট গোলজার হোসেন তার ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণের সময় জনতার হাতে নাতে ধরা পড়ে। এক পর্যায়ে এলাকাবাসী তাকে প্রহার করলে সে আহত হয়ে আটঘরিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়।
নির্যাতিত গৃহবধু আরো জানায়, গোলজার হোসেনের এলাকায় প্রভাব থাকায় উল্টো আমার স্বামীর বিরুদ্ধে মারপিটের অভিযোগ এনে আটঘরিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
গৃহবধূর স্বামী সোনা মিয়া বলেন, হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে গোলজার আমার উপর বিভিন্ন হুমকি দিয়ে চলেছে।
সন্জয়পুর ক্লাবপাড়ায় বাসিন্দা বাচ্চু ফকির বলেন, গোলজার হোসেন এলাকায় লম্পট হিসেবে পরিচিতি। তিনি বলেন, এর আগেও একাধিক গৃহবধূর ঘরে ঢুকে ধর্ষণ করলেও তার কোন বিচার হয়নি।
চাঁদভা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল ইসলাম কামাল বলেন, লম্পট গোলজার এলাকায় একাধিক মেয়ে ও গৃহবধূর ঘরে ঢুকে ধর্ষণ ও ধর্ষণের চেষ্টা চালিয়েছে ইতির্পূবেও। তিনি বলেন, তার ইউনিয়ন পরিষদেও একাধিক শালিশ বৈঠক হয়েছে।
আটঘরিয়া থানার এসআই মিজানুর রহমান বলেন, তার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ এলেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।