রাজশাহীর পদ্মায় চামড়া ফেলে দিলেন মৌসুমি ব্যবসায়ীরা

দৈনিক নতুন বিশ্ববার্তা অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:৩০ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২, ২০২০

রাজশাহীতে দাম না পেয়ে কোরবানির পশুর চামড়া পদ্মা নদীতে ফেলা হয়েছে। রোববার দুপুরের দিকে রাজশাহীর বুলনপুরে আই-বাঁধ সংলগ্ন পদ্মা নদীতে ১৫০০ পিস ছাগলের চামড়া পদ্মা নদীতে ফেলা হয়। তৌহিদ ফেরদৌস তন্ময় নামের একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী পদ্মা নদীতে কোরবানির পশুর চামড়া ফেলার ছবি ও ভিডিও পোস্ট দিয়ে লিখেছেন, ‘রাজশাহীর মৌসুমী চমড়া ব্যবসায়ীরা চামড়ার দাম না পেয়ে কোরবানির পশুর চামড়া পদ্মা নদীতে ফেলে দিচ্ছে।

রাজশাহীর আই-বাঁধ সংলগ্ন নদীতে চামড়াগুলো ফেলে দিয়েছে তারা। এইভাবেই নষ্ট হচ্ছে আমাদের দেশের সম্পদ ও পদ্মা নদীর পরিবেশ। খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, রাজশাহীতে এবার সবচেয়ে কম দামে বিক্রি হচ্ছে কোরবানির পশুর চামড়া।প্রত্যাশিত দামে নিজেরা বিক্রি করতে না পেরে অনেকেই চামড়া সরাসরি দান করেছেন মাদ্রাসা অথবা এতিমখানায়। আবার সেসব চামড়া নিয়ে পড়েছে বিপাকে পড়েছেন সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোঅনেক মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ীরা চামড়া বিক্রি করতে না পেরে সেসব চামড়া পদ্মা নদীতে ফেলে দিয়েছে। সরকার চামড়ার দাম নির্ধারন করলেও প্রতি পিস গরুর চামড়া বিক্রি হচ্ছে ৩শ থেকে ৪শ টাকা দরে। আর ছাগলের চামড়া বিক্রি হয়েছে ১০ থেকে ৩০ টাকা প্রতি পিস। ছোট আকারের ছাগলের চামড়া বিক্রিই করতে পারেননি অনেকে। বেশীরভাগ ক্ষেত্রে আড়তদারদের বিনামুল্যে কোরবানির পশুর চামড়া দিতে বাধ্য হয়েছেন তারা। অভিযোগ রয়েছে, মূলধন বকেয়ার অজুহাত দেখিয়ে অধিক মুনাফার আশায় বড় আড়তদারদের সিন্ডিকেট বাজার নিম্নমুখি করেছে। যদিও আড়তদাররা দায়ী করছেন ট্যানারী মালিকদের