ভাঙ্গুড়ায় ঘর নির্মাণে বাঁধা

দৈনিক নতুন বিশ্ববার্তা অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:৫৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৩, ২০২০

পিপ : পাবনার ভাঙ্গুড়ায় বসতবাড়ি নির্মাণ করার সময় কাজে বাঁধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আনোয়ার হোসেন (৩৫) নামে স্থানীয় এক বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার খাঁন মরিচ ইউনিয়নের শিয়ালবাড়িয়া গ্রামে। আনোয়ার পার্শ্ববর্তী গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত কুদরত সরদারের ছেলে ও সাবেক খাঁন মরিচ ইউনিয়ন যুব দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি।
স্থানীয়রা জানায়, খাঁন মরিচ ইউনিয়নের পূর্ব রামনগর মৌজার শিয়ালবাড়িয়া গ্রামে ভি.পি ও খাস সম্পত্তি আউশাগাড়া পুকুরের (দাগ নং-৫৫৪) চারপাশে হতদরিদ্র ২০/২৫ পরিবার প্রায় তিরিশ বছর ধরে ঘর নির্মাণ করে বসবাস করছেন। পুকুরটি গত ২০ বছর যাবৎ শিয়ালবাড়িয়া গ্রামের জামে মসজিদের দখলে ছিল। কিন্তু গত দুই বছর পূর্বে পার্শ্ববর্তী গোবিন্দপুর গ্রামের আনোয়ার হোসেন তার বাহিনী নিয়ে জোর পূর্বকভাবে পুকুরটি দখল করে। এর পর থেকেই আনোয়ারসহ তার বাহিনী পুকুরের ধারে বসবাসকারিদের বিভিন্ন চকম ভয়-ভীতিসহ হুমকি দিয়ে আসছে।
গত কয়েক দিন পূর্বে শিয়ালবাড়িয়া গ্রামের মৃত হাচেন প্রামাণিকের ছেলে ও পুকুরের ধারে বসবাসরত তোফাজ্জল প্রামাণিকের ঘর নির্মাণের সময় আনোয়ার তার বাহিনীদের দিয়ে ঘরের পাঁচ-সাতটি কাঠের খুঁটি কেটে ফেলে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন বলেন,আনোয়ার এলাকায় প্রভাবশালী হওয়ায় তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে সাহস পায় না।
ভুক্তভোগী তোফাজ্জল প্রামাণিক বলেন,আমি এখানে র্দীঘ তিরিশ বছর ধরে ঘর তুলে বসবাস করে আসছি। আমার বসত ঘরটি ক্ষতিগ্রস্ত হলে পুনরায় আমি ঘর নির্মাণ কাজ শুরু করি। কিন্তু আনোয়ার তার বাহিনী নিয়ে আমার ঘরের পাঁচ-সাতটি কাঠের খুঁটি কেটে ফেলেছে। এখন আমিসহ আমার পরিবারকে বিভিন্ন রকম হুমকি প্রদান করছে আনোয়ার।
অভিযোগ অস্বীকার করে বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেন বলেন,তোফাজ্জলের সাথে আমার কোন বিরোধ নেই। সে একবছর পূর্বে নিজেই আমিন দিয়ে সীমানা নির্ধারণ করেন। এখন নিজেই আমার জায়গায় দখল করে ঘর নির্মাণ করছে। বিষয়টি তার আত্মীয় স্বজনদের জানালে তারা ঘরের কাজ বন্ধ রেখেছে।
এ বিষয়ে ভাঙ্গুড়া থানার ওসি মুহম্মদ আনোয়ার হোসেন বলেন,বিষয়টি তিনি অবগত নন। তবে অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।